How to Earn Money From New Bkash app Without any Investment.

আজকের পোস্টটি শুধু মাত্র বাংলাদেশের মানুষের জন্য। আমাদের মধ্যে সবাই কম বেশি বিকাশের নাম শুনেছি আমরা জানি এটি একটি ডিজিটাল মোবাইল ব্যাংকিং সিস্টেম।  আমরা যারা স্মাটফোন ব্যবহার করি তারা সবাই শুধু মাত্র কিছু স্টেপ পালন করে খুব সহজে মাসে ২৫০০০-৫০০০০ টাকা আয় করতে পারবেন। এবং এটা আপনি যে বয়সের মানুষই হন কেনো যদি আপনার কাছে একটি স্মাটফোন থাকে আপনি খুব সহজেই বিকাশ এপস থেকে একটি ভালো পরিমান টাকা আয় করতে পারবেন।
বর্তমানে বিকাশ কোম্পানি তাদের তাদের এই মোবাইল ব্যাংকিং এপস এর মাধ্যমে একটি রেফার সিস্টেম  চালু করেছে।  যার ফলে যে কেউ যদি নির্দিষ্ট নিয়ম মানে তাহলে ওনি খুব সহজেই মাসে ইউজ পরিমান টাকা এখান থেকে আয় করে নিতে পারবে।  তারা তাদের এই এপস রেফার কমিশন প্রত্যেকটি সফল রেফার এ ৫০-১৫০ টাকা করে দিচ্ছে।

সুতরাং আপনি চাইলেই খুব সহজে এখান থেকে রেফারিং করে খুব ভালো পরিমান টাকা আয় করে নিতে পারবেন খুব সহজে। বিশেষ করে আমরা যারা ফেজবুক, টুইটার বা বিভিন্ন স্যোশাল মিডিয়ায় সময় ব্যয়করি তাদের জন্য এটি একটি সুবিধার কাজ। অথবা যারা ইউটিউবার তারা চাইলেও কিন্তু খুব সহজে এখান থেকে হিউজ পরিমান টাকা আয় করে নিতে পারবেন খুব সহজে এবং কম সময়ে।

প্রথমে আপনার যদি কোনো বিকাশ একাউন্ট না থাকে তাহলে আপনি নিজেই একটি বিকাশ একাউন্ট করে নিন বিকাশ এপস থেকে তারপর আপনি নিচের স্টেপগুলো অনুসরণ করুন টাকা আয় করার জন্য।

আর যদি আপনি প্রথমবার বিকাশ একাউন্ট খুলে ১৫০ টাকা ফ্রীতে পেতে চান তাহলে আমার আগের পোস্টটি নিচে ক্লিক করে দেখে আসতে পারেন।

কিভাবে খুব সহজে বিকাশ একাউন্ট খুলে ফ্রীতে ১৫০ টাকা নিবেন।

এবার আসি বিকাশ এপস থেকে কিভাবে রেফার করে টাকা আয় করা যায়। 

১ম ধাপ : 
প্রথমে আপনাকে এই লিংক থেকে এপসটি ডাউনলোড করেতে হবে । তারপর একটি একাউন্ট খুলতে হবে।  কিভাবে বাসায় বসে একাউন্ট খুলবেন এবং ১৫০ টাকা প্রথমবার বোনাস পাবেন তা জানার জন্য এখানে ক্লিক করুন। একাউন্ট খুলে নেওয়ার পর এপসটি ওপেন করুন।  এবং আপনার মোবাইলে ফেসবুক মেসেঞ্জার এপস ইনস্টল করুন। 

২য় ধাপ:
ফেজবুক মেসেঞ্জার এপস টি ওপেন করুন এবং সার্চবারে লিখুন "Bkash Limited" তারপর সার্চ করুন।

৩য় ধাপ :
তাদের একটা মেসেজ দিন এবং নিচের দিকে খেয়াল করুন একটি থ্রি ডট মেনু এখানে ক্লিক করুন।
এবং নিচে স্কল করুন এবং খেয়াল করুন রেফার করুন নামে একটা অপশন আছে এখানে ক্লিক করুন।

তারপর আপনাকে একটা ফিরতি মেসেজ দিবে সেখানে আবার রেফারেল লিংক চাই এ ক্লিক করুন।

তারপর আপনাকে একটি রেফার লিংক দেওয়া হবে সেটা কপি করে করে এটা নোট পেড বা আপনার খাতায় লিখে রাখুন।

আবার নিচের স্কল করে স্টাটাস এ ক্লিক করুন।
এরপর আবার রেজিষ্ট্রেশন এ ক্লিক করুন। এবং যে নাম্বারটি দিয়ে আপনার বিকাশ একাউন্ট খুলেছেন সেই নাম্বারটি ইংরেজিতে  দিন।

উদাহরণ: 
017XXXXXXXX (সঠিক)
০১৭xxxxxxxx     (ভুল)

মানে বাংলায় নাম্বার লিখবেন না।

তারপর আপনার মোবাইলে বিকাশ থেকে একটি ৪ ডিজিটের কোড যাবে ভেরিফাই করার জন্য সেটা আপনি তাদের রিপ্লে তে পাঠান। যদি মেসেজে ৪ সংখ্যার কোডটি না পান তাহলে আবার সিরিয়াল চাই এ ক্লিক করুন।

কোডটি তাদের দেওয়ার পর আপনাকে জানানো হবে আপনার রেজিষ্ট্রেশন সফল হয়েছে এবার আপনি সেই লিংকটি আপনার বন্ধুদের সাথে বা আপনার পরিবারের সবার সাথে শেয়ার করুন যারা স্মার্টফোন ব্যবহার করে যদি কেউ আপনার দেওয়া লিংক থেকে ক্লিক করে বিকাশ একাউন খুলে তাহলে আপনি ৫০-১৫০ টাকা বোনাস পাবেন এবং যে খুলবে সেই ৫০-১৫০ টাকা বোনাস পাবে।

এবার  ধরি আপনি প্রতিদিন ৫ টি করে একাউন্ট খুলে দিলেন আপনার রেফার লিংক থেকে তাহলে ৩০ দিনে ১৫০ জন মানুষকে একাউন্ট  খুলে দিলেন।  ১৫০ জন্য মানুষকে একাউন্ট খুলে দিলে আপনি পাবেন ৭৫০০ টাকা।  প্রত্যেকটি একাউন্টে নিশ্চিত ৫০ পাবেন।  বেশিও পেতে পারেন।  তাহলে টাকার পরিমান আরো বেশি হবে।

আর যদি প্রতিদিন ২০ টি করে একাউন্ট খুলে দেন তাহলে মাসে হয় ৬০০ টি একাউন্ট তাহলে আপনি পাবেন ৩০০০০ টাকা অথবা বেশিও পেতে পারেন।  আমরা এখানে ৫০ টাকা করে ধরেছি। 

এভাবে আপনি চাইলে বিকাশ থেকে হিউজ পরিমান টাকা আয় করতে পারবেন।

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post